রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ০৭:৫২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বরিশালে সরকারি বিধি-নিষেধ বাস্তবায়নের জেলা প্রশাসনের কঠোর অবস্থান মোবাইল কোর্ট অভিযানে ১৪৭ টি মামলায় ১ লক্ষ ৪১ হাজার টাকা জরিমানা আদায়। বানারীপাড়া মোবাইল কোর্টে ১০ হাজার ৮ শত টাকা জরিমানা বানারীপাড়ায় সন্ধ্যা নদীতে নির্মিত হচ্ছে স্বপ্নের সেতু কঠোর লকডাউনে কলাপাড়ায় নয় জনকে অর্থদণ্ড। করোণা ভাইরাস বৃদ্ধির কারণ বরিশাল সদর উপজেলায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ২০৯ জন নিবাসীদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী ও কুরবানি উপলক্ষে গরু-ছাগল বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার।        বরিশাল উদ্যোক্তা হাব ফাউন্ডেশন এর আয়োজনে করোনায় কর্মহীন ৭০ টি পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার। বরিশালে ফোন দিয়ে ডিসির কাছে সহায়তা চাইলেন বিরেন ১০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পৌঁছে দিলেন জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার। বরিশালে ঈদের দিনে সরকারি শিশু পরিবারের সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের সাথে ঈদ উদযাপন করেন জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার। বরিশাল টেলিভিশন চিত্র সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে বরিশালসহ দেশবাসীকে ঈদুল-উল-আযহার শুভেচ্ছা করোনা পজিটিভ রোগীর বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সহায়তা প্রদান।। ঈদ উপহার পৌছে দিলো নান্দিকাঠি মানব কল্যাণ সংস্থা বরিশাল নগরীতে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা দক্ষিণাঞ্চলে ঈদের নামাজ কোথায় কখন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি পালন করে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করার আহ্বান পুলিশ কমিশনারের
শেবাচিম হাসপাতালের আইসিইউ ওয়ার্ডে অপ্রীতিকর ঘটনা

শেবাচিম হাসপাতালের আইসিইউ ওয়ার্ডে অপ্রীতিকর ঘটনা

Sharing is caring!

বরিশাল  : করোনা রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা আইসিইউ ওয়ার্ডে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। উত্তেজিত রোগীর স্বজনরা হামলা-ভাঙচুর চালানোর চেষ্ঠা করলে মারা যাওয়া রোগীর তিন স্বজনকে আটক করা হয়।

পরবর্তীতে দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ায় তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে। শেবাচিম হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় করোনা রোগী মো. কামরুজ্জামান (৪০) মারা যান। তিনি পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বাসিন্দা। গত ১৩ জুলাই করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। অবস্থা খারাপ হলে তাকে আইসিইউতে শিফট করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী আইসিইউ ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্স নয়ন জানান, রোগীকে মৃত ঘোষণা করার সাথে সাথে তাদের স্বজনরা রোগী বেডের মনিটর ভাঙচুর এবং তার ছিঁড়ে ফেলেন। এমনকি তারা ইন্টার্ন চিকিৎসক ও দায়িত্বরত নার্সদের উপর হামলা চালানোর চেষ্টা চালায়। এ সময় ৩ জনকে আটক করে কোতোয়ালী থানায় খবর দেয়া হয়।রোগীর স্বজনদের অভিযোগ ছিল, চিকিৎসা অবহেলায় তাদের রোগী মারা গেছে।

তিনি আরো জানান, কোতোয়ালী থানার ওসি নুরুল ইসলাম আসার পর পরিচালকের কক্ষে বসে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়। এ সময় মৃত রোগীর স্বজনরা তাদের দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ায় হাসপাতালের পরিচালক তাদের ক্ষমা করে দিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করে দেন।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, রোগীর স্বজনরা তাদের ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন। তাছাড়া তারাওতো তাদের স্বজন হারিয়েছেন। মানবিক দিক বিবেচনা করে কোতয়ালী থানার ওসি’র উপস্থিতিতে বিষয়টি মীমাংসা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © crimeseen24.com-2017