বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
উজিরপুরে ৮ম শ্রেনীর ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করায় বখাটে ইমন মিয়া গ্রেফতার বরিশালে ডাকাত- পুলিশ গোলাগুলি ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়ায় মানববন্ধন করে এলাকাবাসী পদ্মা সেতু উদ্বোধনে বদলে যাচ্ছে দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনীতি কাশিয়ানীতে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে র‍্যালী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পদ্মা সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেখুন পদ্মা সেতু হয়েছে কিনা: খালেদাকে শেখ হাসিনা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে বরিশালে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা কলাপাড়ায় শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার-১ কলাপাড়ায় শিশু শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে বার্ষিক ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ঘাটতি নেই বরিশালে কোরবানিযোগ্য গবাদি পশুর গলাচিপায় ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ নিয়ে ২ বছর পর্যন্ত ভোগান্তিতে শিক্ষার্থী এবং ব্যবসায়ী বরিশালে জন্ম নিলো তিন কন্যা সন্তান স্বপ্ন-পদ্মা ও সেতু বরিশালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধান নিবেদন সিলেটে আইডিয়াল হিউম্যান ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে খাদ্য ও বস্ত্র বিতরণ
বরিশালে বেড়েছে নদ নদীর পানি, দুপুর হলেই প্লাবিত হয় নিচু এলাকা

বরিশালে বেড়েছে নদ নদীর পানি, দুপুর হলেই প্লাবিত হয় নিচু এলাকা

Sharing is caring!

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপ ও অমাবস্যা জোয়ারের প্রভাবে দক্ষিণাঞ্চলের সকল নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। বরিশালে কীর্তনখোলা নদীর পানিও মঙ্গলবার সকালে বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। নদী তীরবর্তী নিচু এলাকা জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে। পাশাপাশি জোয়ারের পানিতে বরিশাল নগরের বিভিন্ন এলাকা তলিয়ে গেছে। ড্রেনের পানি উপচে পড়ে শহরের রাস্তাঘাটে প্রবেশ করছে।

এতে দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। দুপুরে বরিশাল নগরের রসুলপুর, ভাটিখানা, সাগরদী, ধানগবেষণা রোড, জিয়ানগর, ব্যাপ্টিস্ট মিশন রোড, স্টেডিয়াম কলোনি ও সদর রোড, সাংবাদিক মাঈনুল হাসান সড়ক জোয়ারের পানিতে তলিয়ে যায়। কীর্তনখোলার সঙ্গে যুক্ত ড্রেন দিয়ে এসব এলাকায় জোয়ারের পানি ঢুকেছে।

তবে আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে জোয়ারের প্রভাব কমে গেলে পানি মেনে যাবে এবং এতে আতংকিত হওয়ার কিছু নেই বলে জানিয়েছেন বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক রঞ্জন দাস। বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকাল ৬টায় কীর্তনখোলা নদীর পানি বরিশাল বন্দর পয়েন্ট বিপৎসীমার ৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়। অপরদিকে বিভাগের অপর ৫টি নদীর ৯টি পয়েন্টে সোমবার বিপৎসীমা অতিক্রম করে।

আজও ওই ৫ নদীতে অস্বাভাবিক পানি প্রবাহ ছিল। পানি উন্নয়ন বোর্ডের মিটার গেজ রিডার আব্দুর রহমান জানান, কীর্তনখোলার নদীর পানির বিপৎসীমা ২.৫৫ মিটার। মঙ্গলবার সকাল ৬টায় ২.৬০ মিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়। এদিকে পানি বৃদ্ধির কারণে নদী তীরবর্তী নিচু এলাকাগুলো জোয়ারের সময় পানিতে তলিয়ে যায়। এতে দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়। তবে ৬ ঘণ্টা পর ভাটার সময় পানি নেমে যায়। এদিকে জোয়ারের পানির সাথে গত দুই দিন বরিশালে থেমে থেমে বৃষ্টি হওয়ায় বিভিন্ন সড়কে পানি জমেছে। মঙ্গলবার সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে স্থানীয় আবহাওয়া অফিস।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © crimeseen24.com-2017
Design By MrHostBD