বুধবার, ২৪ Jul ২০২৪, ০৭:০৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বরিশালের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া কলাপাড়ায় যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার কলাপাড়ায় সমুদ্রগামী জেলেদের মাঝে লাইফ জ্যাকেট বিতরণ ইলিশ ও বিভিন্ন প্রজাতির সামুদ্রিক ৮০ মন মাছসহ একটি কাভার্ট ভ্যান ও একটি বাস জব্দ কোটা বিরোধী আন্দোলনে কুয়াকাটা ছাত্রলীগ কর্মীর ছবি ভাইরাল হসপিটালের কাজে দূর্নীতি প্রতিবাদ করায় ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচার, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন মহানগর বি এন পির আহবায়কের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় সাংগঠনিক দক্ষতাই শিরীনকে ঈর্ষার কারণ কলাপাড়ায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কলাপাড়ায় উল্টো রথটানার মাধ্যমে রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত কুয়াকাটায় তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সৈকত পরিচ্ছন্নতা অভিযান বরগুনার আমতলীতে বহিষ্কৃত নেতা কর্মীকে নিয়ে যুবদলের আনন্দ মিছিল এরশাদের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকীতে দোয়ার আয়োজন গৌরনদী পৌর মেয়রের শপথ গ্রহণ সভাপতি আনু, সম্পাদক আমির। কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন
কলাপাড়ায় রাস্তা সংস্কারের নামে কেটে ফেলা হয়েছে অসংখ্য তাল ও খেজুর গাছ

কলাপাড়ায় রাস্তা সংস্কারের নামে কেটে ফেলা হয়েছে অসংখ্য তাল ও খেজুর গাছ

Sharing is caring!

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি।।
পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় রাস্তা সংস্কারের নামে কেটে ফেলা হয়েছে ১০ থেকে ১৫ ফুট দৈর্ঘ্যরে অন্তত ৩০ থেকে ৩৫ টি তালগাছ খেজুর গাছ। চাকামাইয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবর রহমান নির্দেশে ওই ইউনিয়নের মৌলভীতবক গ্রামের সড়কের পাশে থাকা গাছগুলো কেটে ফেলে স্থানীয়রা। প্রায় ২০ দিন আগে কাবিটা প্রকল্পের আওতায় ওই গ্রামের ২ কিলোমিটার সড়কে মাটি ফেলার কাজ করে চেয়ারম্যান। এর আগে তার নির্দেশে বাড়ীর সামনে সরকারী সড়কের উপরে থাকা গাছগুলো স্থানীয়রা নির্বিচারে কেটে ফেলে।
এছাড়া সড়কে মাটি ফেলার সময় ভেকু দিয়ে অনেক গাছ অপসারন করে খালে ফেলে দেয়া হয়।
পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষাকারী ও বজ্রপাত প্রতিরোধক এসব গাছ না কেটেও সড়কে মাটি ফেলার কাজ করা যেতো বলে দাবি স্থানীয়দের। তবে চেয়ারম্যান তার বিরেদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করলেও বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন ইউএনও।
স্থানীয় বাসিন্দা কাউসার জানান, এই সকল গাছ আমাদের প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা করে। বর্জ্যপাত থেকে আমাদেরকে রক্ষা করে। গাছগুলো রেখে মাটির কাজ করলে ভালো হতো বলে আমি মনে করি।
চাকা মাইয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবর রহমান জানান, আমার বিরুদ্ধে আনিতো অনেক অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিক্তিহীন।নির্বাচনে হেরে আমার প্রতিপক্ষ এগুলো করাচ্ছে। তিনি আরো জানান সাবেক চেয়ারম্যান পনেরো বছর ক্ষমতায় থাকাকালীন কোন রাস্তায় একটি মাটিও দেননি। আমি দায়িত্ব নিয়ে ইউনিয়নের সকল রাস্তাকে যখন উন্নয়নের দিকে নিয়ে যাচ্ছি তখন আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে।
কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।
মোয়াজ্জেম হোসেন
কলাপাড়া
Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © crimeseen24.com-2017
Design By MrHostBD