বুধবার, ২৪ Jul ২০২৪, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বরিশালের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া কলাপাড়ায় যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার কলাপাড়ায় সমুদ্রগামী জেলেদের মাঝে লাইফ জ্যাকেট বিতরণ ইলিশ ও বিভিন্ন প্রজাতির সামুদ্রিক ৮০ মন মাছসহ একটি কাভার্ট ভ্যান ও একটি বাস জব্দ কোটা বিরোধী আন্দোলনে কুয়াকাটা ছাত্রলীগ কর্মীর ছবি ভাইরাল হসপিটালের কাজে দূর্নীতি প্রতিবাদ করায় ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচার, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন মহানগর বি এন পির আহবায়কের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় সাংগঠনিক দক্ষতাই শিরীনকে ঈর্ষার কারণ কলাপাড়ায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কলাপাড়ায় উল্টো রথটানার মাধ্যমে রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত কুয়াকাটায় তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সৈকত পরিচ্ছন্নতা অভিযান বরগুনার আমতলীতে বহিষ্কৃত নেতা কর্মীকে নিয়ে যুবদলের আনন্দ মিছিল এরশাদের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকীতে দোয়ার আয়োজন গৌরনদী পৌর মেয়রের শপথ গ্রহণ সভাপতি আনু, সম্পাদক আমির। কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন
বরিশালে যত্রতত্র মর্টার চালিত রিক্সায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে দূর্ঘটনা

বরিশালে যত্রতত্র মর্টার চালিত রিক্সায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে দূর্ঘটনা

Sharing is caring!

বরিশাল প্রতিনিধিঃ

বরিশাল নগরীতে মর্টার চালিত অবৈধ রিক্সার ছড়াছড়ি। একদিকে যেমন বেপরোয়া গতিতে চলতে গিয়ে ঘটাচ্ছে দূর্ঘটনা। অন্যদিকে টিট টিট হর্ণের তীব্র শব্দ যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ জনসাধারণ। এই রিক্সাগুলোর কারণে নগরীর বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিন দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে সাংবাদিক,পুলিশ, চিকিৎসক,আইনজীবী,শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষ। এ বিষয় হাতেম আলী কলেজের এক ছাত্র অভিযোগ করে বলেন,,পায়ে চালিত রিক্সার ব্রেক দিয়ে মর্টার চালিত রিক্সা কোন ভাবেই কন্ট্রোল করা যায় না। সুতরাং একে বেঁকে এমন ভাবে চলাচল করে দেখলে ভয় লাগে। এগুলো কি প্রশাসনের চোখে পড়ে না। তাদের টনক নড়বে কবে মানুষের মৃত্যুর পর। আতিকুর রহমান নামে এক ভুক্তভোগী অভিযোগ করে বলেন,,প্রতিদিন গড়ে নতুন ১০-১৫ টি রিক্সা নামানো হচ্ছে সড়কে। সবাই হয়তো মনে করে গরীব মানুষ রিক্সা চালায় এখানেও বিপত্তি। আসলে বিষয়টা সেখানে না। কোন চালকের রিক্সা নিজের না সবাই ভাড়া চালায়। মূলত ব্যটারি চালিত অটোরিকশা হাত পা নেই বিকলাঙ্গ মানুষের জন্য তৈরি করা হলেও এটি এখন মানুষের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। যার ফল দূর্ঘটনার স্বীকার নগরবাসীর এমন অভিযোগের পর অনুসন্ধানে জানা গেছে বরিশালে চলাচল করা বেশির ভাগ রিক্সার মালিক টাকা ওয়ালা অথবা প্রভাবশালী কোন ব্যক্তি। অবৈধ এই যানগুলোর কারণে দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে নিরীহ মানুষ। অন্য এক বাসিন্দা অভিযোগ করে বলেন, কাকলীর মোড় থেকে জেলখানা মোড়ে মর্টার চালিত রিক্সা গেলে পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়। পরের দিন জরিমানা নিয়ে আবার ছেড়ে দেয়। তাতে রিক্সা পরিমাণে কমে ? কমে না বরং দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি আরও বলেন,, বেপরোয়া গতিতে চলার পর দূর্ঘটনা ঘটায় এরপর আহত ব্যক্তির পা ধরে বলে মাফ করেন ভাই গরীব মানুষ। যখন বেপরোয়া গতিতে চলে তখন মনে থাকে না যে সে গরীব মানুষ। তখন তো মনে হয় রিক্সা নয় যেন আকাশে প্লেন চালায়। আমরা নগরবাসী মর্টার চালিত এই রিক্সাগুলো বন্ধে শুধু আশ্বাস নয় প্রশাসনের কার্যকর পদক্ষেপ দেখতে চাই। এ বিষয় ডিসি ট্রাফিক বিএমপি ( উপ-পুলিশ কমিশনার ) এসএম তানভীর আরাফাত বলেন,, আমাদের ডামপিং করে রাখার নিজস্ব কোন জায়গা নাই, রিক্সা আটক করে রাখবো কোথায়। জায়গা চেয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে আমরা ইতোমধ্যে চিঠি দিয়েছি। অনেক সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও অবৈধ এই রিক্সা নিয়ন্ত্রণে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। প্রতিদিন গড়ে ১০-১৫ টি রিক্সা আটক করা হচ্ছে। জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমাদের এই ধরা অব্যাহত রেখে কাজ করবো ইনশাআল্লাহ।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © crimeseen24.com-2017
Design By MrHostBD