শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৫০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
মানব সেবায় অবদান রাখায় সম্মাননা সনদ পেলো লাভ ফর ফ্রেন্ডস গলাচিপায় ৪৪তম বিজ্ঞান প্রযুক্তি সপ্তাহ উদ্‌যাপিত গলাচিপায় আমখোলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন শিশু হত্যায় মরদেহ নিয়ে সড়কে বিক্ষোভ বরিশাল জেলায় মোবাইল কোর্ট অভিযান দশ হাজার টাকা অর্থদণ্ড নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতির,,১০ দফা দাবি রাখাল চন্দ্র দে ও মুকুল দাস গুণীজন সংবর্ধনা পেলেন পটুয়াখালীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ৫০টি সুন্ধি কচ্ছপ উদ্ধার ও অবমুক্ত কলাপাড়ায় ফার্নিচার তৈরীর কারখানায় অগ্নিকান্ড ওমরাহ করতে গেলেন পূর্ণিমা স্বামী-কন্যার সঙ্গে নেইমারের সমালোচনায় কাকা সুবিধাবঞ্চিত ছিন্নমূল এতিম শিশু ও দরিদ্র মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ দেশ ঠিক আছে বিএনপির তলা ফেটেগেছে: নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী সবজিসহ নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় হিমশিম খাচ্ছে সাধারণ মানুষ
প্রতিবন্ধী মেয়ের ধর্ষণের বিচারের চেয়ে মায়ের সংবাদ সম্মেলন

প্রতিবন্ধী মেয়ের ধর্ষণের বিচারের চেয়ে মায়ের সংবাদ সম্মেলন

Sharing is caring!

অনলাইন ডেক্স: প্রতিবন্ধী মেয়ের ধর্ষণের বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক মা। বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির (বিআরইউ) শহীদ জননী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহান আরা বেগম স্মৃতি মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন হয়।

এতে লিখিত বক্তব্য ধর্ষণের শিকার প্রতিবন্ধী মেয়ের মা ছালমা (ছদ্মনাম) বলেন, গত ৮ সেপ্টেম্বর সকালে আমার স্বামী কৃষিকাজ করার জন্য মাঠে চলে যায়। এরপর আমি রান্নার কাজ শেষ করে বেলা ১১টার দিকে ডাক্তার দেখানোর জন্য বাবুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাই। ওই সময় আমার বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মেয়ে একা ঘরে ছিল। ডাক্তার দেখানোর পর আমি যখন বাড়িতে ফিরে আসি তখন প্রতিবেশীর কাছে শুনতে পাই, বাড়িতে একটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। আমি ঘরে ঢুকে আমার স্বামীর কাছ থেকে জানতে পারি তিনি বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাড়িতে এসে ঘরের সামনের ও পেছনের দরজা বন্ধ দেখতে পেয়ে মেয়েকে ডাক দেন। তখন মেয়ে ঘরের পেছনের দরজা খুলে দিলে ভেতরে প্রবেশ করে প্রতিবেশী শহিদুল ইসলামকে ঘরের ভেতর দেখতে পান। এ সময় শহিদুল ইসলাম দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে মেয়ের কাছ থেকে জানতে পারি শহিদুল ইসলাম তাকে ধর্ষণ করেছে।

ধর্ণষের শিকার প্রতিবন্ধী মেয়েটির মা সংবাদ সম্মেলনে আরও বলেন, বিষয়টি অবগত হওয়ার পর শহিদুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে আমাদের ঘরে এসে মাফ চায়। তবে আমরা বিষয়টির সঠিক বিচারের দাবিতে মামলা করার প্রস্তুতি নেই। পরবর্তীতে মামলা করতে থানায় গেলে শহিদুলের পরিবার আমাদের মামলা না করার জন্য বলে। আর যদি মামলা করি তাহলে আমাদের মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

তিনি বলেন, আমার বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ করেছে। যদি এর সঠিক বিচার না পাই তাহলে মা-মেয়ে দুজনেই আত্মহত্যা করবো। আমার মেয়ে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী, তারপর আবার ধর্ষণের শিকার হয়েছে—এই জীবন রাখার চেয়ে না রাখাই ভালো।

এ বিষয়ে বাবুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহাবুবুর রহমান জানান, মামলা দায়েরের পর থেকেই আসামি পলাতক। তবে আসামিকে ধরতে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © crimeseen24.com-2017
Design By MrHostBD