বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০১:২৯ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
উজিরপুরে ৮ম শ্রেনীর ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করায় বখাটে ইমন মিয়া গ্রেফতার বরিশালে ডাকাত- পুলিশ গোলাগুলি ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়ায় মানববন্ধন করে এলাকাবাসী পদ্মা সেতু উদ্বোধনে বদলে যাচ্ছে দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনীতি কাশিয়ানীতে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে র‍্যালী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পদ্মা সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেখুন পদ্মা সেতু হয়েছে কিনা: খালেদাকে শেখ হাসিনা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে বরিশালে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা কলাপাড়ায় শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার-১ কলাপাড়ায় শিশু শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে বার্ষিক ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ঘাটতি নেই বরিশালে কোরবানিযোগ্য গবাদি পশুর গলাচিপায় ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ নিয়ে ২ বছর পর্যন্ত ভোগান্তিতে শিক্ষার্থী এবং ব্যবসায়ী বরিশালে জন্ম নিলো তিন কন্যা সন্তান স্বপ্ন-পদ্মা ও সেতু বরিশালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধান নিবেদন সিলেটে আইডিয়াল হিউম্যান ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে খাদ্য ও বস্ত্র বিতরণ
কলাপাড়ায় আসামিকে মুক্তির দাবিতে থানা ঘেরাও,, ৩ পুলিশ সদস্যসহ আহত-১৮

কলাপাড়ায় আসামিকে মুক্তির দাবিতে থানা ঘেরাও,, ৩ পুলিশ সদস্যসহ আহত-১৮

Sharing is caring!

পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পরাজিত ইউপি মেম্বর প্রার্থীর ভাইয়ের মুক্তির দাবিতে থানা ঘেরাও করেছে সমর্থকরা। এসময় বিক্ষুধ্ব সমর্থকদের হামলায় ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এঘটনায় পুলিশের লাঠিচার্জে অন্তত ১৫ সমর্থক আহত হয়েছে। শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় উপজেলার মহিপুর থানার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

মহিপুর থানা পুলিশ জানায়, সদ্য সমাপ্ত লতাচাপলী ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের পরাজিত মেম্বর প্রার্থী জলিল ঘরামী ও তার ভাই খলিল ঘরামী ওই এলাকার মানুষকে মারধরসহ বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছিলো। এ ঘটনায় আজ শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে ওই এলাকার কবির মোল্লার স্ত্রী শিউলী বেগম বাদী হয়ে খলিল ঘরামীসহ বেশ কয়েকজনের নামে একটি মামলা করেন। পরে পুলিশ তিনটার দিকে আসামি খলিল ঘরামীকে গ্রেফতার করে। খবর পেয়ে জলিল ঘরামী ও তার প্রায় ৪ শ‘ সমর্থকদের নিয়ে থানা ঘেরাও করে এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করলে এসআই হালিম, কনস্টেবল ওবাইদুল ও মিলনসহ ওই মেম্বরের ১৫ সমর্থক আহত হয়। পরে আহতদের উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পরাজিত মেম্বর প্রার্থী জলিল ঘরামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তবে ওই মেম্বর প্রার্থীর সমর্থকদের দাবি, পুলিশ তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। এতে তাদের ১৫ জন আহত হয়েছে।

মহিপুর থানার ওসি খন্দকার আবুল খায়ের আজকের পত্রিকাকে জানান, তাদের বার বার থানার সামনে থেকে সরে যেতে বলা হয়েছে। কিন্তু তারা পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছে এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে। এতে আমাদের থানার এসআই হালিমের অন্ডকোষে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। এছাড়া দুই কনস্টেবল গুরুতর আহত হয়েছে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © crimeseen24.com-2017
Design By MrHostBD